সেনাবাহিনী নিয়ে অপপ্রচার আইএসআইর ইন্ধনে: আওয়ামী লীগ

ধানমণ্ডির আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহমান বলেন, “বিএনপি-জামায়াতের মনগড়া, বিকৃত ও বাস্তবতা বিবর্জিত মিথ্যাচার রাজনীতির ময়দান ছেড়ে জাতির গর্ব ও আত্মমর্যাদার স্মারক জাতীয় সেনাবাহিনী পর্যন্ত গড়িয়েছে।

“আজ বিএনপি-জামায়াত পরাজিত পাকিস্তানি গোয়েন্দা সংস্থা আইএসআইয়ের প্রেসক্রিপশনে সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে অপপ্রচারে নেমেছে।”

নির্বাচনে সেনা মোতায়েনের দাবি জোরেশোরে তুলেছিল বিএনপি ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। গত ২৪ ডিসেম্বর সেনা মোতায়েনের পর সোশাল মিডিয়ায় বিভ্রান্তিকর নানা তথ্য আসতে থাকে, যা নিয়ে সশস্ত্র বাহিনীর পক্ষ থেকে সতর্কবার্তাও দেওয়া হয়।

এই অপপ্রচারে বিএনপি-জামায়াত জোটের সংশ্লিষ্টতার অভিযোগ তুলে তাতে আইএসআইর যোগসূত্র থাকার নজির হিসেবে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেনের কথিত টেলি কথপোকথনকে দেখাচ্ছেন আওয়ামী লীগের নেতারা।

রহমান বলেন, “কিছু দিন আগেও আপনারা দেখেছেন ঐক্যফ্রন্টের অন্যতম নেতা ডা. জাফরুল্লাহ বাংলাদেশ সেনাবাহিনী ও সেনাবাহিনীর প্রধানকে নিয়ে কীভাবে নির্লজ্জ, মিথ্যাচার, অপপ্রচার করেছে।

“আর এখন সেনাবাহিনীর নামে বিভিন্ন ভুয়া ওয়েবসাইট ও ফেইসবুক আইডি খুলে অপপ্রচার ও বিভ্রান্তি ছড়ানোর ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে।”

সেনাবাহিনী নিয়ে বিএনপি-জামায়াতের ‘এই ধরনের ষড়যন্ত্র নতুন নয়’ মন্তব্য করে আওয়ামী লীগ নেতা বলেন, “বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান ক্যু এর নামে তথাকথিত সামরিক ট্রাইবুনালে প্রহসনের বিচারে শত শত মুক্তিযোদ্ধা, সেনা কর্মকর্তা, হাজার হাজার সেনাসদস্যকে হত্যা করেছেন। প্রতিদিন নাস্তার টেবিলে বসে অবৈধ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান শত শত সেনা সদস্যের ফাঁসির রায় স্বাক্ষর করতেন।” ধানমণ্ডির আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহমান বলেন, “বিএনপি-জামায়াতের মনগড়া, বিকৃত ও বাস্তবতা বিবর্জিত মিথ্যাচার রাজনীতির ময়দান ছেড়ে জাতির গর্ব ও আত্মমর্যাদার স্মারক জাতীয় সেনাবাহিনী পর্যন্ত গড়িয়েছে।

“আজ বিএনপি-জামায়াত পরাজিত পাকিস্তানি গোয়েন্দা সংস্থা আইএসআইয়ের প্রেসক্রিপশনে সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে অপপ্রচারে নেমেছে।”

নির্বাচনে সেনা মোতায়েনের দাবি জোরেশোরে তুলেছিল বিএনপি ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। গত ২৪ ডিসেম্বর সেনা মোতায়েনের পর সোশাল মিডিয়ায় বিভ্রান্তিকর নানা তথ্য আসতে থাকে, যা নিয়ে সশস্ত্র বাহিনীর পক্ষ থেকে সতর্কবার্তাও দেওয়া হয়।

এই অপপ্রচারে বিএনপি-জামায়াত জোটের সংশ্লিষ্টতার অভিযোগ তুলে তাতে আইএসআইর যোগসূত্র থাকার নজির হিসেবে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেনের কথিত টেলি কথপোকথনকে দেখাচ্ছেন আওয়ামী লীগের নেতারা।

রহমান বলেন, “কিছু দিন আগেও আপনারা দেখেছেন ঐক্যফ্রন্টের অন্যতম নেতা ডা. জাফরুল্লাহ বাংলাদেশ সেনাবাহিনী ও সেনাবাহিনীর প্রধানকে নিয়ে কীভাবে নির্লজ্জ, মিথ্যাচার, অপপ্রচার করেছে।

“আর এখন সেনাবাহিনীর নামে বিভিন্ন ভুয়া ওয়েবসাইট ও ফেইসবুক আইডি খুলে অপপ্রচার ও বিভ্রান্তি ছড়ানোর ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে।”

সেনাবাহিনী নিয়ে বিএনপি-জামায়াতের ‘এই ধরনের ষড়যন্ত্র নতুন নয়’ মন্তব্য করে আওয়ামী লীগ নেতা বলেন, “বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান ক্যু এর নামে তথাকথিত সামরিক ট্রাইবুনালে প্রহসনের বিচারে শত শত মুক্তিযোদ্ধা, সেনা কর্মকর্তা, হাজার হাজার সেনাসদস্যকে হত্যা করেছেন। প্রতিদিন নাস্তার টেবিলে বসে অবৈধ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান শত শত সেনা সদস্যের ফাঁসির রায় স্বাক্ষর করতেন।” ধানমণ্ডির আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহমান বলেন, “বিএনপি-জামায়াতের মনগড়া, বিকৃত ও বাস্তবতা বিবর্জিত মিথ্যাচার রাজনীতির ময়দান ছেড়ে জাতির গর্ব ও আত্মমর্যাদার স্মারক জাতীয় সেনাবাহিনী পর্যন্ত গড়িয়েছে।

“আজ বিএনপি-জামায়াত পরাজিত পাকিস্তানি গোয়েন্দা সংস্থা আইএসআইয়ের প্রেসক্রিপশনে সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে অপপ্রচারে নেমেছে।”

নির্বাচনে সেনা মোতায়েনের দাবি জোরেশোরে তুলেছিল বিএনপি ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। গত ২৪ ডিসেম্বর সেনা মোতায়েনের পর সোশাল মিডিয়ায় বিভ্রান্তিকর নানা তথ্য আসতে থাকে, যা নিয়ে সশস্ত্র বাহিনীর পক্ষ থেকে সতর্কবার্তাও দেওয়া হয়।

এই অপপ্রচারে বিএনপি-জামায়াত জোটের সংশ্লিষ্টতার অভিযোগ তুলে তাতে আইএসআইর যোগসূত্র থাকার নজির হিসেবে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেনের কথিত টেলি কথপোকথনকে দেখাচ্ছেন আওয়ামী লীগের নেতারা।

রহমান বলেন, “কিছু দিন আগেও আপনারা দেখেছেন ঐক্যফ্রন্টের অন্যতম নেতা ডা. জাফরুল্লাহ বাংলাদেশ সেনাবাহিনী ও সেনাবাহিনীর প্রধানকে নিয়ে কীভাবে নির্লজ্জ, মিথ্যাচার, অপপ্রচার করেছে।

“আর এখন সেনাবাহিনীর নামে বিভিন্ন ভুয়া ওয়েবসাইট ও ফেইসবুক আইডি খুলে অপপ্রচার ও বিভ্রান্তি ছড়ানোর ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে।”

সেনাবাহিনী নিয়ে বিএনপি-জামায়াতের ‘এই ধরনের ষড়যন্ত্র নতুন নয়’ মন্তব্য করে আওয়ামী লীগ নেতা বলেন, “বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান ক্যু এর নামে তথাকথিত সামরিক ট্রাইবুনালে প্রহসনের বিচারে শত শত মুক্তিযোদ্ধা, সেনা কর্মকর্তা, হাজার হাজার সেনাসদস্যকে হত্যা করেছেন। প্রতিদিন নাস্তার টেবিলে বসে অবৈধ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান শত শত সেনা সদস্যের ফাঁসির রায় স্বাক্ষর করতেন।” ধানমণ্ডির আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহমান বলেন, “বিএনপি-জামায়াতের মনগড়া, বিকৃত ও বাস্তবতা বিবর্জিত মিথ্যাচার রাজনীতির ময়দান ছেড়ে জাতির গর্ব ও আত্মমর্যাদার স্মারক জাতীয় সেনাবাহিনী পর্যন্ত গড়িয়েছে।

“আজ বিএনপি-জামায়াত পরাজিত পাকিস্তানি গোয়েন্দা সংস্থা আইএসআইয়ের প্রেসক্রিপশনে সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে অপপ্রচারে নেমেছে।”

নির্বাচনে সেনা মোতায়েনের দাবি জোরেশোরে তুলেছিল বিএনপি ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। গত ২৪ ডিসেম্বর সেনা মোতায়েনের পর সোশাল মিডিয়ায় বিভ্রান্তিকর নানা তথ্য আসতে থাকে, যা নিয়ে সশস্ত্র বাহিনীর পক্ষ থেকে সতর্কবার্তাও দেওয়া হয়।

এই অপপ্রচারে বিএনপি-জামায়াত জোটের সংশ্লিষ্টতার অভিযোগ তুলে তাতে আইএসআইর যোগসূত্র থাকার নজির হিসেবে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেনের কথিত টেলি কথপোকথনকে দেখাচ্ছেন আওয়ামী লীগের নেতারা।

রহমান বলেন, “কিছু দিন আগেও আপনারা দেখেছেন ঐক্যফ্রন্টের অন্যতম নেতা ডা. জাফরুল্লাহ বাংলাদেশ সেনাবাহিনী ও সেনাবাহিনীর প্রধানকে নিয়ে কীভাবে নির্লজ্জ, মিথ্যাচার, অপপ্রচার করেছে।

“আর এখন সেনাবাহিনীর নামে বিভিন্ন ভুয়া ওয়েবসাইট ও ফেইসবুক আইডি খুলে অপপ্রচার ও বিভ্রান্তি ছড়ানোর ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে।”

সেনাবাহিনী নিয়ে বিএনপি-জামায়াতের ‘এই ধরনের ষড়যন্ত্র নতুন নয়’ মন্তব্য করে আওয়ামী লীগ নেতা বলেন, “বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান ক্যু এর নামে তথাকথিত সামরিক ট্রাইবুনালে প্রহসনের বিচারে শত শত মুক্তিযোদ্ধা, সেনা কর্মকর্তা, হাজার হাজার সেনাসদস্যকে হত্যা করেছেন। প্রতিদিন নাস্তার টেবিলে বসে অবৈধ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান শত শত সেনা সদস্যের ফাঁসির রায় স্বাক্ষর করতেন।” ধানমণ্ডির আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহমান বলেন, “বিএনপি-জামায়াতের মনগড়া, বিকৃত ও বাস্তবতা বিবর্জিত মিথ্যাচার রাজনীতির ময়দান ছেড়ে জাতির গর্ব ও আত্মমর্যাদার স্মারক জাতীয় সেনাবাহিনী পর্যন্ত গড়িয়েছে।

“আজ বিএনপি-জামায়াত পরাজিত পাকিস্তানি গোয়েন্দা সংস্থা আইএসআইয়ের প্রেসক্রিপশনে সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে অপপ্রচারে নেমেছে।”

নির্বাচনে সেনা মোতায়েনের দাবি জোরেশোরে তুলেছিল বিএনপি ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। গত ২৪ ডিসেম্বর সেনা মোতায়েনের পর সোশাল মিডিয়ায় বিভ্রান্তিকর নানা তথ্য আসতে থাকে, যা নিয়ে সশস্ত্র বাহিনীর পক্ষ থেকে সতর্কবার্তাও দেওয়া হয়।

এই অপপ্রচারে বিএনপি-জামায়াত জোটের সংশ্লিষ্টতার অভিযোগ তুলে তাতে আইএসআইর যোগসূত্র থাকার নজির হিসেবে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেনের কথিত টেলি কথপোকথনকে দেখাচ্ছেন আওয়ামী লীগের নেতারা।

রহমান বলেন, “কিছু দিন আগেও আপনারা দেখেছেন ঐক্যফ্রন্টের অন্যতম নেতা ডা. জাফরুল্লাহ বাংলাদেশ সেনাবাহিনী ও সেনাবাহিনীর প্রধানকে নিয়ে কীভাবে নির্লজ্জ, মিথ্যাচার, অপপ্রচার করেছে।

“আর এখন সেনাবাহিনীর নামে বিভিন্ন ভুয়া ওয়েবসাইট ও ফেইসবুক আইডি খুলে অপপ্রচার ও বিভ্রান্তি ছড়ানোর ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে।”

সেনাবাহিনী নিয়ে বিএনপি-জামায়াতের ‘এই ধরনের ষড়যন্ত্র নতুন নয়’ মন্তব্য করে আওয়ামী লীগ নেতা বলেন, “বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান ক্যু এর নামে তথাকথিত সামরিক ট্রাইবুনালে প্রহসনের বিচারে শত শত মুক্তিযোদ্ধা, সেনা কর্মকর্তা, হাজার হাজার সেনাসদস্যকে হত্যা করেছেন। প্রতিদিন নাস্তার টেবিলে বসে অবৈধ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান শত শত সেনা সদস্যের ফাঁসির রায় স্বাক্ষর করতেন।”

You May Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *